ঠাকুরগাঁওয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী তাহমিনা মোল্লাকে গণসংবর্ধনা দিলো উচ্ছ্বসিত মানুষ – RBC

ঠাকুরগাঁওয়ে স্বতন্ত্র প্রার্থী তাহমিনা মোল্লাকে গণসংবর্ধনা দিলো উচ্ছ্বসিত মানুষ

প্রকাশ: ডিসেম্বর ৩১, ২০২৩

আঁখি জামান, স্টাফ রিপোর্টার, ঠাকুরগাঁও :

২৪ দিনের আইনি লড়াইয়ের পর ভোটের ৯ দিন আগে অবেশেষে আসন্ন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে ঠাকুরগাঁও-১ আসনে প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী তাহমিনা আখতার মোল্লা। এ উপলক্ষ্যে ঢাকা থেকে ফিরে আজ শনিবার (৩০ ডিসেম্বর) বিকেলে ঠাকুরগাঁওয়ের ডাক বাংলোতে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদন করেন তিনি। এসময় বিভিন্ন নারী সংগঠন, বিভিন্ন সামাজিক সাংস্কৃতিক সংগঠন, স্থানীয় নারী নেত্রীরাসহ তাঁর নেতাকর্মী ও স্থানীয় উচ্ছ্বসিত মানুষ স্বতন্ত্র প্রার্থী তাহমিনা আখতার মোল্লা কে ফুলেল শুভেচ্ছা ও গণসংবর্ধনা প্রদান করেছে। সে সময় তাকে তাঁর নিজ কর্মস্থল জাতীয় মহিলা সংস্থা থেকেও ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়। এ সময় সেখানে উৎসবমূখর পরিবেশ বিরাজ করছিলো। পরে সেখানে তিনি তাঁর নিজস্ব কর্মী সমর্থক সাংবাদিকদের সাথে মত বিনিময় করেন এবং সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন তাহমিনা। গণসংবর্ধণা ও মত বিনিময় অনুষ্ঠানে বক্তব্য প্রদানকালে স্বতন্ত্র প্রার্থী তাহমিনা আখতার মোল্লা বলেন, আমি জনগণের সেবিকা হিসেবে আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন পত্র দাখিল করি। কিন্তু নির্বাচন কমিশন এর পক্ষে স্থানীয় রির্টানিং কর্মকর্তা আমার মনোনয়ন পত্র বাতিল ঘোষণা করে। সেটা অন্যায়ভাবেই করা হয়েছে।জনগণের সেবায় নিয়োজিত থাকার জন্য আমি বাংলাদেশের উচ্চ আদালতে একাধিক বার রিট করে গত বৃহস্পতিবার প্রার্থীতা ফিরে পেয়েছি। আজ আমিসহ আমার কর্মীরা বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করলাম। এখন নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করবো ইনশাআল্লাহ। তিনি আরো বলেন, আমি ঠাকুরগাঁও-১ (সদর) আসনের মানুষের জন্য কিছু করতে চাই। তবে জনপ্রতিনিধি হওয়া ছাড়া বা সিদ্ধান্ত গ্রহণ প্রক্রিয়া অংশগ্রহণ ছাড়া এটা সেভাবে সম্ভব নয়। তাই আমি এই আসনের মানুষের কাছে অনুরোধ করবো অতীতের মতো তারা যেনো আমার পাশে থাকেন। আমি সংসদ সদস্য হলে মাদক নির্মুল, বাল্য বিবাহ রোধ, নারী ও শিশু নির্যাতন রোধ, নির্যাতিত মানুষের পক্ষে থাকা, আইনের শাসন প্রতিষ্ঠা, বেকারত্ব দূরীকরণ, অবকাঠামো উন্নয়নসহ বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে কাজ করবো বলেও জানান তিনি। সে সময় ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সর্বস্তরের মানুষের দোয়া ও সহযোগিতা কামনা করেন তাহমিনা মোল্লা। এ সময় জাতীয় মহিলা সংস্থার কর্মকর্তা-কর্মচারি, নারী নেত্রী, উদ্যোক্তা, বিভিন্ন পেশাজীবি ও স্বতন্ত্র প্রার্থী তাহমিনা মোল্লার কর্মীসমর্থকরাসহ জেলা উপজেলার বিভিন্ন পর্যায়ের শুভাকাঙ্খী ও নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য, গত ৪ ডিসেম্বর ঠাকুরগাঁও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এক শতাংশ ভোটারের সমর্থন না থাকার অভিযোগে তাহমিনা মোল্লার মনোনয়নপত্র বাতিল করেন। বৃহস্পতিবার (২৮ ডিসেম্বর) সুপ্রিম কোর্টে আবেদ‌নের শুনা‌নি শে‌ষে সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ পান তিনি। রায়ে তার প্রার্থীতা ফেরত দেওয়া হয়েছে। ঠাকুরগাঁও-১ আসনে তাহমিনা আক্তার মোল্লার প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হলেন বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, সাবেক মন্ত্রী ও বর্তমান সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন। তাহমিনা আক্তার মোল্লা ঠাকুরগাঁও জেলা মহিলা সংস্থার চেয়ারম্যান ও সাবেক সদর উপজেলা মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান এবং সাবেক জেলা যুব মহিলা লীগের সভাপতি ছিলেন। আগামী ৭ জানুয়ারি দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে এই আসনে ২২টি ইউনিয়ন ও একটি পৌরসভা নিয়ে ভোটার প্রায় ৪লাখ ৮১ হাজার।