ঠাকুরগাঁও ১ আসনে স্বতন্ত্র থেকে প্রার্থীতা ফিরে পাওয়া প্রার্থীর সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময়ে প্রশাসনের বাধা – RBC

ঠাকুরগাঁও ১ আসনে স্বতন্ত্র থেকে প্রার্থীতা ফিরে পাওয়া প্রার্থীর সাথে সাংবাদিকদের মতবিনিময়ে প্রশাসনের বাধা

প্রকাশ: ডিসেম্বর ৩০, ২০২৩

আঁখি জামান, স্টাফ রিপোর্টার, ঠাকুরগাঁও:

দীর্ঘ ২৪ দিনের আইনি লড়াইয়ের পর ভোটের ৯ দিন আগে অবেশেষে আসন্ন দ্বাদশ সংসদ নির্বাচনে ঠাকুরগাঁও-১ আসনে প্রার্থিতা ফিরে পেয়েছেন স্বতন্ত্র প্রার্থী তাহমিনা আখতার মোল্লা। ঢাকা থেকে ফিরে শনিবার (৩০ ডিসেম্বর) বিকেলে ঠাকুরগাঁওয়ের ডাক বাংলোতে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধাঞ্জলি নিবেদনের পূর্বমুহূর্তে স্থানীয় গণমাধ্যমকর্মীদের সাথে এক মতবিনিময় করেন তিনি। বক্তব্যের মাঝখানেই জনসভার অনুমতি আছে কিনা এমন প্রশ্নে বাধা প্রদান করেন ঠাকুরগাঁও জেলা সহকারী কমিশনার ও এক্সিকিউটিভ ম্যাজিস্ট্রেট আসাদুল ইসলাম। তাহমিনা মোল্লা বলেন, আমি জনগণের সেবিকা হিসেবে আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে মনোনয়ন পত্র দাখিল করি। কিন্তু নির্বাচন কমিশন আমার মনোনয়ন পত্র বাতিল ঘোষণা করে। জনগণের সেবায় নিয়োজিত থাকার জন্য আমি বাংলাদেশের উচ্চ আদালতে একাধিক বার রিট করে গত বৃহস্পতিবার প্রার্থীতা ফিরে পেয়েছি। আজ আমি সহ আমার কর্মীরা বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করতে আসলে গনমাধ্যমকর্মীদের বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে প্রশাসন আমাকে বক্তৃতা দিতে বাধা প্রদান করে। তিনি আরো বলেন, এর আগে ৩০ নভেম্বরে আমার সাথে পক্ষপাতীত্ব করা হয়েছে আজকেও আমার কথা বলার মাঝখানে থামিয়ে দেওয়া এতে কি প্রমাণিত হয়! ঠাকুরগাঁও বড়মাঠে যেতে অনুমতি লাগে বলে প্রশাসন বাধা প্রদান করেছে এতে আমি কিছু বলিনি। কিন্তু ডাক বাংলোতে বঙ্গবন্ধুর ম্যুরালে আসতে অনুমতি নিতে হবে এটা আজকে জানলাম। যারা জনগণের কথা বলেন তারা যে নির্যাতিত সেটা আজকে প্রমাণিত হয়েছে বলে জানান তিনি। এ ব্যাপারে নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেট আসাদুল ইসলাম বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী তাহমিনা মোল্লার রায়ের কোন কাগজ এখোনো নির্বাচন কমিশন না প্রার্থীর কাছে পাইনি। আর তাছাড়া তিনি অনুমতি ছাড়া এই কর্মসূচি করায় তাকে বাধা দেওয়া হয়েছে। ব্যক্তিগত বা প্রশাসনিক কোন কারণ এখানে নেই। আর আমরা প্রশাসনের মধ্যে নির্বাচনী ডিউটি করছি মাত্র। এখানে অভিযোগের কিছুই নেই বলেও জানান তিনি। এ সময় স্বতন্ত্র প্রার্থী তাহমিনা মোল্লার সমর্থকরা সহ জেলা উপজেলার বিভিন্ন নেতা-কর্মীরা উপস্থিত ছিলেন। উল্লেখ্য: উল্লেখ্য, গত ৪ ডিসেম্বর ঠাকুরগাঁও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তা এক শতাংশ ভোটারের সমর্থন না থাকার অভিযোগে তাহমিনা মোল্লার মনোনয়নপত্র বাতিল করেন বৃহস্পতিবার (২৮ ডিসেম্বর) সুপ্রিম কোর্টে আবেদ‌নের শুনা‌নি শে‌ষে সংসদ নির্বাচনে অংশগ্রহণের সুযোগ পান তিনি।