গোবিন্দগঞ্জে দশ বছর ধরে ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ দিয়ে পানি ঢুকে ভাঙ্গনের কবলে নদী পাড়ের মানুষ – RBC

গোবিন্দগঞ্জে দশ বছর ধরে ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ দিয়ে পানি ঢুকে ভাঙ্গনের কবলে নদী পাড়ের মানুষ

প্রকাশ: অক্টোবর ৫, ২০২৩

মোঃ নাফিউল ইসলাম ,গাইবান্ধা জেলা প্রতিনিধি:

বছর আসে বছর যায়, কিন্তু ক্ষতিগ্রস্ত বেড়ী বাঁধ সংস্কার না হওয়ায়,বন্যা এলেই পানি ঢুকে নদী ভাঙ্গনে সহায়-সম্বল হারাচ্ছে গোবিন্দগঞ্জ পৌর শহরের খলসি ও চাঁদপুর খলসি গ্রামের নদী পারের হাজারো মানুষ। ক্ষতিগ্রস্তরা বলছেন, দশ বছর আগে বন্যায় খসলি থেকে চাঁদপুর খলসি হয়ে কাটাখালি হাওয়াখানা পর্যন্ত ১কিলোমিটার বেড়ী বাঁধ ভেঙে খলসি গ্রামের বাড়ী ঘর, ফসলি জমি নদীগর্ভে বিলিন হয়েছে কয়েকবার, কোন বাঁধ সংস্কার না হওয়ায় এবারও ক্ষতিগ্রস্ত বাঁধ দিয়ে পানি ঢুকে বন্যায় নদী ভাঙ্গন দেখা দিয়েছে। এতে ফসলি জমি,বাড়ী ঘর,স্কুল, মসজিদ,মন্দির,শ্বসান, মাদ্রাসা,ঈদগাহ, ঢাকা-রংপুর মহাসড়ক হুমকির মুখে পড়েছে। পৌরসভার ২,৪নং ওয়ার্ডের আওতাভুক্ত এ অঞ্চলটির মানুষনদী ভাঙ্গনের সাথে যুদ্ধ করে টিকে আছে। বন্যার সময় ওই এলাকায় সনাতন ধর্মালম্বীর কোন মানুষের মৃত্যু হলে শ্বসানে সৎকার্য ও মুসলিম ধর্মের মানুষ মারা গেলে কবরস্থ করা অসম্ভব হয়ে পড়েছে। তাই নদী পারের মানুষ এ বাঁধটি দ্রুত সংস্কার করে স্থায়ী সমাধানের দাবী তাদের। এ বিষয়ে গোবিন্দগঞ্জ পৌরসভার মেয়র ও জেলা আওয়ামীলীগ সদস্য মুকিতুর রহমান রাফি সাংবাদিকদের বলেন, লোকাল গভর্ন্যান্স সাপোর্ট প্রজিক্টে(এলজিএসপি) সিসি ব্লোক দিয়ে একশত দশ কোটি টাকা ব্যয়ে প্রটেকশন ওয়াল এর প্রকল্প প্রস্তাবনা দেওয়া আছে।সেটি বাস্তবায়ন হলে এ সমস্যা সমাধান হবে। এ বিষয়ে পানি উন্নয়ন বোর্ড গাইবান্ধার নির্বাহী প্রকৌশলী হাফিজুল ইসলাম বলেন, এটি একটি নদী খনন ও তীররক্ষা প্রকল্প দেয়া আছে। খু্ব তাড়াতাড়ি প্রকল্পটির কাজ শুরু হবে।