দেশের মানুষের স্বাস্থ্য সেবার মান আরো বাড়াতে হবে -বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন – RBC

দেশের মানুষের স্বাস্থ্য সেবার মান আরো বাড়াতে হবে -বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন

প্রকাশ: সেপ্টেম্বর ২৫, ২০২৩

আঁখি জামান, স্টাফ রিপোর্টার, ঠাকুরগাঁও :

বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য, সাবেক মন্ত্রী ও ঠাকুরগাঁও-১ আসনের সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন বলেছেন, দেশের মানুষের স্বাস্থ্য সেবার মান আরো বাড়াতে হবে। যেন সাধারণ ও অসহায় এবং দরিদ্র মানুষ সহজেই সেবা পায়। বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষের সুন্দর স্বাস্থ্যের জন্য ও ভালো চিকিৎসার জন্য স্বাস্থ্য সেবার আরো উন্নত ও আধুনিক করা প্রয়োজন। যেন মানুষের দোড় গোড়ায় এ স্বাস্থ্য সেবা পৌছানো সম্ভব হয়। বর্তমান সরকার সে লক্ষ্যেই কাজ করে যাচ্ছে । আজ সোমবার দুপুরে ঠাকুরগাঁও জেলা স্বাস্থ্য ও ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সভায় সভাপতির বক্তব্যে সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, করোনা মোকাবেলায় চিকিৎসক নার্স ও সকল সরকারি হাসপাতালের কর্মকর্তা কর্মকারিদের অগ্রণী ভুমিকা পালন করেছেন। স্বাস্থ্য বিভাগের কর্মীদের কর্ম দক্ষতা, চিকিসক, নার্সদের আর আমাদের সচেতনতা বোধই আমাদের এই অন্যান্য দূযোর্গ ও বিভিন্ন রোগ থেকে বাঁচাতে পারে। তবে কোন সরকারি কর্মকর্তা, চিকিৎসক , নার্স বা স্বাস্থ্য বিভাগের কোন কর্মকর্তা ও কর্মচারি করোনা নিয়ে কোন গাফিলাতি কোন ভাবেই সহ্য করা হবে না । যাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ রযেছে তাদের অভিযোগের সত্যতা মিললেই আইনগত ও বিধিগত ব্যবস্থা নেয়া হবে। স্বাস্থ্য বিভাগের কোন ধরণের অনিয়ম সহ্য করা হবে না বলে হুসিয়ারি দিয়ে সাবেক এ মন্ত্রী বলেন যে কোন কিছুর বিনিময় ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালটিকে দালাল ও অনিয়ম মুক্ত করতে হবে। এটি করতে আমাদের যত ধরনের পদক্ষেপ নেয়া দরকার সব নেয়া হবে। রমেশ চন্দ্র সেন বলেন, সারাদেশের স্বাস্থ্য বিভাগের বিরুদ্ধে যে অনিয়মের অভিযোগ উঠেছে তা স্বচ্ছতা ও জবাবদিহিতার মাধ্যম্যে স্বাস্থ্য বিভাগকে আবারো ফিরিয়ে আনতে হবে। এটাই এখন স্বাস্থ্য বিভাগের বড় চ্যালেঞ্জ । আর দূর্নীতির বিরুদ্ধে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন।

সে কারণে দুর্নীতি রুখতে সকল পদক্ষেপ নিচ্ছে সরকার। স্বাস্থ্য বিভাগসহ সকল মন্ত্রনালয় ও বিভাগ এবং অধিদপ্তরকে দুর্নীতি মুক্ত করা হবে। সকল দুূর্নীতিবাজদের খুঁজে বের করে আইনের আওতায় আনা হবে। তিনি আরো বলেন, দেশের মানুষের মান সম্মত স্বাস্থ্য সেবার জন্য দিনরাত কাজ করছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সকল রোগীরা যাতে শতভাগ চিকিৎসা সেবা আমাদের হাসপাতাল থেকে পায় সেদিকে চিকিৎসকদের লক্ষ্য রাখতে হবে।

রোগীদের সেবা নিশ্চিত করতে হবে। সেই সাথে হাসপাতালের কর্তৃপক্ষকে সবসময় সজাগ থাকার পরামর্শ দেন সংসদ সদস্য রমেশ চন্দ্র সেন। এ সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ঠাকুরগাঁওয়ের সিভিল সার্জন ডা. নূর নেওয়াজ আহমেদ, অতিরিক্ত অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অর্থ ও হিসাব) লিজা বেগম, হাসপাতালে ভারপ্রাপ্ত তত্ত্বাবধায়ক ডা: শেখ মাসুদ, ঠাকুরগাঁও জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি মাহবুবুর রহমান খোকন, সাবেক জেলা পরিষদ সদস্য ও জেলা আ.লীগের ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক নজরুল ইসলাম স্বপন ঠাকুরগাঁও রিপোর্টার্স ইউনিটি ও জাতীয় সাংবাদিক সংস্থা ঠাকুরগাঁও জেলা শাখার সাধারণ সম্পাদক আসাদুজ্জামান আসাদ প্রমুখ। এসময় হাসপাতাল ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্যরা ছাড়াও প্রশাসনের বিভিন্ন স্তরের কর্মকর্তা, চিকিৎসক, নার্স, সাংবাদিক ও আওয়ামীলীগ এর নেতারা উপস্থিত ছিলেন। সে সময় ঠাকুরগাঁও আধুনিক সদর হাসপাতালের বিভিন্ন সমস্যার সমাধান ও উন্নয়নে বিভিন্ন বিষয় নিয়ে আলোচনা করেন বক্তারা।